পৃথিবীর অভ্যন্তরের স্তর বিন্যাস


পৃথিবীর অভ্যন্তরের স্তর বিন্যাস বা পৃথিবীর অভ্যন্তরের গঠন

পৃথিবীর অভ্যন্তরের স্তর বিন্যাস

পৃথিবীর অভ্যন্তরের স্তর বিন্যাস :– আমরা পৃথিবীর উপরিভাগে বসবাস করি এটা সকলেই জানি কিন্তু পৃথিবীর উপরিভাগে বসবাস করলেও পৃথিবীর অভ্যন্তর কি নিয়ে গঠিত বা পৃথিবীর অভ্যন্তরে কি আছে তা জানতে আমাদের সকলের মনে কৌতুহল জাগে। এবং বিজ্ঞানীরাও এই কৌতূহল বশত পৃথিবীর অভ্যন্তর এর বিষয়ে গবেষণা করে আমাদের একটা ধারণা দিয়েছেন।

বিজ্ঞানীরা এই বিষয়ে গবেষণা করার জন্যে যে যে পদ্ধতি ব্যাবহার করেছিলেন তার কয়েকটি হলো যেমন:

১/ বিজ্ঞানীরা আগ্নেওগিরি অগ্নিউৎপাত থেকে বের হওয়া ম্যাগমা কি দিয়ে গঠিত, তার উপর পরীক্ষা করেছেন।
২/ খননকার্য বা খনি থেকে থেকে বের হওয়া উপাদানগুলোর উপর পরীক্ষা করেছেন।
৩/ ভূমিকম্পের p তরঙ্গ, s তরঙ্গ এগুলোর উপর পরীক্ষা করেছেন।


এভাবে বিভিন্ন প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ভাবে ভূ অভ্যন্তরের গঠন সম্বন্ধে গবেষণা করে, আমাদের যা কিছু ধারণা দিয়ে গেছেন তা আলোচনা করবো।

পৃথিবীর অভ্যন্তরীণ গঠন:- পৃথিবীর অভ্যন্তর সাধারণত তিনটি স্তরে গঠিত।

যথা:- ১/ভূত্বক বা শিলামন্ডল, ২/গুরুমন্ডল, ৩/কেন্দ্রমণ্ডল।


ভূত্বক বা শিলা মন্ডল:- পৃথিবী পৃষ্টের উপরিভাগের কঠিন শিলা দ্বারা গঠিত অংশকে ভূ ত্বক বা শিলামন্ডল বলা হয়। এই স্তরে সমস্ত জীবের বসবাস। পৃথিবীর স্থলভাগে বা মহাদেশীয় অংশে প্রায় 60 কিমি বিস্তার করে আছে। এবং পৃথিবীর সমূদ্রভাগে বা মহাসাগরীয় অংশে প্রায় 5কিমি বিস্তার আছে।
ভূ-ত্বক এর শ্রেণী বিভাগ


ভূত্বককে আবার দুই শ্রেণীতে বিভক্ত করা হয়েছে, ১/গঠন অনুসারে ভূত্বক এবং ২/উপাদান অনুসারে ভূত্বক।


গঠন অনুসারে ভূত্বককে আবার দুই শ্রেণীতে বিভক্ত করা হয়েছে,

যথা: i) মহাসাগরীয় ভূ ত্বক এবং ii) মহাদেশীয় ভূ ত্বক।


উপাদান অনুসারেও ভূত্বককে দুই শ্রেণীতে বিভক্ত করা হয়েছে, যথা:-
i) সিয়াল (সিলিকন+অ্যালুমিনিয়াম)
ii) সিমা (সিলিকন+ ম্যাগনেসিয়াম)


ভূত্বক এর বৈশিষ্ট্য :-
১/ সিয়াল গ্রানাইট শিলা দ্বারা বা লঘু আম্লিক শিলা দ্বারা গঠিত ।
২/ সিমা ব্যাসল্ট শিলা বা গুরু ক্ষারকিয় শিলা দ্বারা গঠিত।
৩/ সিয়ালের গড় ঘনত্ব 2.7গ্রাম
৪/ সিমার গড় ঘনত্ব 2.95 গ্রাম
৫/ সিয়াল স্তরে p তরঙ্গের গতি 6.2 কিমি
৬/ সিমাস্তরে p তরঙ্গের গতি 7কিমি
৭/ সিয়াল ও সিমার মাঝে কনরাড বিযুক্ত আছে
৮/ 1909 খ্রিস্টাব্দে ভূ-বিজ্ঞানী কনরাড সিয়াল ও সিমার বিযুক্তি তল আবিষ্কার করেছিলেন, তাই এই বিযুক্তি তলকে কনরাড বিযুক্তি তল বলে।
৯/ মহাদেশীয় ভূ ত্বক গ্রানাডোরাইট, কোরটজ, অ্যাষ্ফিবোলাইট দিয়ে গঠিত।
১০/ মহাসাগরীয় ভূ ত্বক ব্যাসল্ট, গ্যাব্রো ও পেরিডোটাইট দিয়ে গঠিত।
১১/ লিথস্ফিয়ার সিয়াল এবং সিমা দ্বারা গঠিত।
১২/ অ্যালথেনোস্ফিয়ার ঊর্ধ্ব গুরুমণ্ডল দ্বারা গঠিত।
১৩/ অ্যালথেনোস্ফিয়ারকে ক্ষুদ্ধমন্ডল বলা হয়।


গুরু মন্ডল:- ভূ ত্বক বা শিলা মন্ডল এবং কেন্দ্র মণ্ডলের মাঝে থাকা মন্ডলটি হলো গুরু মন্ডল।পৃথিবীর অভ্যন্তরে গুরুমণ্ডল এর বিস্তার প্রায় 60 – 2900 কিমি।


গুরু মন্ডল এর শ্রেণী বিভাগঃ-


গঠন অনুসারে গুরু মন্ডলকে দুটি ভাগে ভাগ করা হয়েছে, যথা: i) ঊর্ধ্ব গুরু মন্ডল (৬০-৭০০কিমি) এবং ii) নিম্ন গুরু মন্ডল (৭০০-২৯০০কিমি)
উপাদান অনুসারে দুই ভাগে বিভক্ত করা গুরু মন্ডল হলো:
i)ক্রোফেসিমা (ক্রোমিয়াম+লৌহ+সিলিকা+ম্যাগনেসিয়াম দ্বারা গঠিত।)
ii) নিফেসিমা (নিকেল+লৌহ+সিলিকা+ম্যাগনেসিয়াম দ্বারা গঠিত।)


গুরুমন্ডলের বৈশিষ্ট্য


১/ ভূ ত্বক ও গুরুমণ্ডলের মাঝে রয়েছে মোহো বা মোহোরভিসিক বিযুক্তি।
২/ বিজ্ঞানী মোহর ভিসিক এর নাম অনুসারে ভূ- ত্বক ও গুরুমণ্ডলের বিযুক্তির নাম মোহ বিযুক্তি হয়।
৩/ ঊর্ধ্ব গুরুমণ্ডল বা বহিঃগুরুমণ্ডল এবং নিম্ন গুরুমন্ডল বা অন্তঃগুরুমণ্ডল মাঝের বিভেদ তলকে রেপিতি বিযুক্তি বলে।
৪/ এই স্তরের পদার্থগুলোর ঘনত্ব প্রায় প্রতি ঘনসেমি তে 3.4 গ্রাম থেকে 1.5 গ্রাম।
৫/ এই স্তরের প্রধান উপাদানগুলি হলো লোহা, নিকেল, ক্রোমিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম ইত্যাদি।
৬/ এই স্তরের উষ্ণতা 2000°C থেকে 3000°C অর্থাৎ কেন্দ্র মণ্ডলের তুলনায় অনেক কম।


কেন্দ্র মণ্ডল এর শ্রেণী বিভাগ:-

পৃথিবীর প্রচণ্ড মাধ্যাকর্ষণ শক্তির প্রভাবে ভূ কেন্দ্রের চারপাশে লোহা, নিকেল প্রভৃতি অত্যন্ত ভারী পদার্থগুলি কেন্দ্রীভূত হয়ে যে স্তর গঠন করেছে, তাকে কেন্দ্রমন্ডল বলে। এই স্তরটি প্রধানত নিকেল এবং লোহা দ্বারা গঠিত বলে একে সংক্ষেপে নিফে বলে। কেন্দ্রমন্ডলকে গঠন অনুসারে i) বহিঃকেন্দ্রমন্ডল এবং ii) অন্তঃকেন্দ্রমন্ডল এই দুটি শ্রেণীতে বিভক্ত করা হয়েছে। এবং উপাদান অনুসারে i) ক্রোফে এবং ii) নিফে এই দুটি শ্রেণীতে বিভক্ত করা হয়।


কেন্দ্র মণ্ডল এর বৈশিষ্ট:-


১/ কেন্দ্র মণ্ডল পৃথিবীর কেন্দ্রের চারদিকে প্রায় 3471 কিমি বিস্তৃত।
২/ এই স্তরের উষ্ণতা অত্যন্ত বেশি, প্রায় 6000°C বা তারও বেশি
৩/ এই স্তরটির প্রধান দুটি উপাদান হলো লৌহা ও নিকেল।
৪/ পৃথিবীর অভ্যন্তরের তিনটি স্তরের মধ্যে এই স্তরের ঘনত্ব এবং ভার সবচেয়ে বেশি। কেন্দ্র মণ্ডল এর ঘনত্ব 9.1 থেকে 13.1 গ্রাম/ঘনসেমি।
৫/ পৃথিবীর কেন্দ্রের চাপ সর্বাপেক্ষা বেশি, প্রায় 3500 বিযুক্তি কিলোবার।
৬/ গুরুমন্ডল এবং কেন্দ্রমণ্ডল এর মাঝে রয়েছে পুটেলবার্গ বিযুক্তি।
৭/ বহিঃকেন্দ্র মণ্ডল এবং অন্তঃকেন্দ্রমন্ডল এর মাঝে রয়েছে লেম্যান বিযুক্তি।

এখানে আমরা জানলাম পৃথিবীর অভ্যন্তরের স্তর বিন্যাস এর বিষয়ে। এছাড়া আরও অন্যান্য শিক্ষণীয় বিষয় জানার জন্য আমাদের পোর্টালে দেওয়া আরও আর্টিকেল সমূহ পড়ুন। (ক্লিক করুন)


WP Twitter Auto Publish Powered By : XYZScripts.com